Home / স্বাস্থ্য টিপস / অ্যান্টিবায়োটিক চলাকালীন যেসব খাবার না খাওয়াই ভাল

অ্যান্টিবায়োটিক চলাকালীন যেসব খাবার না খাওয়াই ভাল

যেকোনো ধরনের একটু বেশি অসুস্থতার জন্যই আমরা ডাক্তারের শরণাপন্ন হই। এবং বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায় ডাক্তার প্রথমেই যে ঔষধটি দেন সেটি হচ্ছে অ্যান্টিবায়োটিক। এই ঔষধটি সাধারণত পানির সাথে খেতে হয় কারন যদি ফলের জুস বা অন্য কোন ধরনের দুগ্ধ জাতীয় খাবারের সাথে সেটা খাওয়া হয় তাহলে এর কার্যকারিতার বিপরীত ফল হতে পারে।

কিছু খাবার রয়েছে যেগুলো অ্যান্টিবায়োটিক সেবনের সময় গ্রহণ করলে ঔষুধের প্রভাবকে ক্ষতিগ্রস্ত করে। এতে কখনো কখনো পেটে সমস্যা তৈরি করে। ডায়রিয়া হতে পারে। তাই যতদিন অ্যান্টিবায়োটিক সেবন করবেন ততদিন এসব খাবার এড়িয়ে চলাই ভালো। দুধ, পনির, মাখন, আইসক্রিম ইত্যাদি দুগ্ধজাতীয় খাবারগুলো অ্যান্টিবায়োটিক সেবনের সময় না খাওয়াই ভালো।

এতে হজমের সমস্যা হতে পারে। তবে দই খাওয়া যেতে পারে। কেননা এর মধ্যে রয়েছে ভালো ব্যাকটেরিয়া যা ডায়রিয়া প্রতিরোধে কাজ করে। আয়রন অ্যান্টিবায়োটিক শোষণকে বাঁধাগ্রস্ত করে। অ্যান্টিবায়োটিক যতদিন সেবন করবেন ততদিন লাল মাংস (গরু, খাসি), বাদাম, গাঢ়সবুজ শাকসবজি, ডার্ক চকোলেট ইত্যাদি কম খান।

কমলা, লেবু ইত্যাদি সাইট্রাস জাতীয় ফলগুলো এই সময় না খাওয়াই ভালো। এগুলো অ্যান্টিবায়োটিক শোষণকে বাঁধাগ্রস্ত করে। ভারি খাবার, সোডা, কফি ইত্যাদি এড়িয়ে চলুন। উচ্চ আঁশযুক্ত খাবারও এড়িয়ে চলার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা। এগুলো শরীরে অ্যাসিড সৃষ্টি করে।