Home / সংবাদ / পোল্যান্ডে ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন বাংলাদেশের মাহবুব

পোল্যান্ডে ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন বাংলাদেশের মাহবুব

পোল্যান্ডে ইতিহাস সৃষ্টি – নপোল্যান্ডের রাজধানী ওয়ারশতে সিটি কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়ে দেশটিতে নতুন ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন বাংলাদেশের মাহবুব সিদ্দিকী। ২১ অক্টোবর অনুষ্ঠিত ভোটগ্রহণে রাজধানীর ইতিহাসে প্রথম কোনো বিদেশি হিসেবে সিটি কাউন্সিলে যাবার গৌরব অর্জন করেন তিনি।

‘প্লাটফর্মা ওবিভাতেলস্কা’ দলের একনিষ্ঠ কর্মী মাহবুব সিদ্দিকীকে প্রত্যক্ষ ভোটে নির্বাচিত করেন ওয়ারশ’র ‘বোহখে’ এলাকার পোলিশ জনগণ। ১৯৭৬ সালে চট্টগ্রামের আগ্রাবাদে জন্মগ্রহণ মাহবুব সিদ্দিকীর। পোল্যান্ডে তার স্থায়ী বসবাস মাত্র এক যুগের হলেও প্রখর মেধা, অধ্যবসায় এবং ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় ধাপে ধাপে উঠে এসেছেন পোলিশ মূলধারার রাজনীতি তথা মেইনস্ট্রিম পলিটিক্সে।

পোলিশ নাগরিক মাহবুব সিদ্দিকীর ধ্যান-জ্ঞান-সাধনা ‘পোলিশ পলিটিক্স, তবে পেশা হিসেবে নিয়েছেন ব্যবসাকে। ওয়ারশ স্টক এক্সচেঞ্জে শেয়ার ব্যবসায় মনোনিবেশ তার বহু বছর আগে থেকেই। ওয়ারশ’র বাংলাদেশিদের সুখ-দুঃখের সাথী মাহবুব সিদ্দিকী একাধারে ইউরোপের ৩০টি দেশের বাংলাদেশিদের সম্মিলিত সংগঠন অল ইউরোপিয়ান বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশনের (আয়েবা) কার্যনির্বাহী পরিষদের সক্রিয় সদস্য।

বীর চট্টলার কৃতী সন্তান মাহবুব সিদ্দিকী তার বিজয়কে উৎসর্গ করেছেন পোলিশ সহধর্মিনী এভা সিদ্দিকী ওলেশেইউককে, যার অক্লান্ত পরিশ্রম ও সহযোগিতায় তিনি পোলিশ রাজনীতিতে সাফল্যের পথে হাঁটতে শুরু করেছেন। ওয়ারশসহ ইউরোপের বাংলাদেশিদের প্রতিও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন নবনির্বাচিত এই সিটি কাউন্সিলর।

উল্লেখ্য, পোলিশ মূলধারার রাজনীতিতে প্রথম ইতিহাস সৃষ্টি করেছিলেন ইউরোপের প্রথম বাংলাদেশি এমপি ডা. হিউবার্ট রঞ্জন কস্তা। জার্মান সীমান্তবর্তী ব্রসলাভ শহরের অধিবাসী, একাত্তরের বীর মুক্তিযোদ্ধা, পুরনো ঢাকার ডা. কস্তা ২০০৫ থেকে ২০০৭ পর্যন্ত পোলিশ পার্লামেন্টের নির্বাচিত সদস্য ছিলেন।