ক্যান্সার ও ডায়াবেটিস প্রতিরোধক করলা

স্বাদের তিতা বলে অনেকেই করলা খেতে পছন্দ করেন না। ছোটদের পাশাপাশি বড়দের খাদ্যতালিকায় থাকে না এটি। তিতা স্বাদ ছাড়াও এর আছে নানা গুণ। করলা ক্যান্সার প্রতিরোধ, ওজন কমানো সহ আরো নানা রকম রোগের বিরুদ্ধে লড়াই করে।

প্রাচীনকালে করলা ওষধি হিসেবে ব্যবহার করা হতো। তবে করলা নিয়ে সম্প্রতি সময়ে করা নানা গবেষণায় বেরিয়ে এসেছে এর অনেক গুণের কথা।

হেলথ ডট কম অনুযায়ী করলায় আছে ব্রকলির দ্বিগুণ পরিমাণ বেটা-কেরোটিন, পালং শাকের দুই গুণ ক্যালসিয়াম আর কলার থেকে দুই গুণ বেশি পটাশিয়াম। কাঁচা করলার রস এন্টি অক্সিডেন্টের দারুণ উৎস।

করলার রস রক্ত পরিশোধন করে। ফলে রক্তের নানা সংক্রমণ, ত্বকের সংক্রমণ দূর, রক্ত থেকে টক্সিন বা দূষিত উপাদান বের করতে সাহায্য করে।

করলার রস রক্ত চলাচল বাড়িয়ে ত্বকের র‍্যাশ, ব্রণ, সোরিয়াসিস, ফোঁড়া ইত্যাদির দূর করে। তাই ত্বক হয়ে ওঠে উজ্জ্বল।

ক্যান্সার কোষের বৃদ্ধি ঠেকাতেও কাজে লাগে করলা। করলায় পলিপেপটাইড পি নামের এক ধরণের প্রোটিন আছে যা অনেকটা ইনসুলিনের মত কাজ করে। এই প্রোটিন মানব শরীরে ইনসুলিনের অনুকরণে কাজ করে যা ডায়াবেটিস রোগীর রক্তে চিনির মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে।