Home / লাইফ স্টাইল / নাক দেখে যায় চেনা, কোন মেয়ের কি মানসিকতা!

নাক দেখে যায় চেনা, কোন মেয়ের কি মানসিকতা!

নাক দেখে যায় চেনা – মুখশ্রী দেখতে ভালো না মন্দ, তাতে বড় একটা বিষয় থাকে নাকের ওপর। নাক কতটা লম্বা বা কতটা সুন্দর তা অনেক ক্ষেত্রেই মুখের আদলে প্রভাব ফেলে দেয়।

তবে শুধু সৌন্দর্য নয়, নাক দিয়ে চেনা যাবে মানুষও। হ্যাঁ! নাকের আদল দিয়ে মানুষটি কেমন হবে, খুবই ভালো বোঝা যায়। এক নজরে দেখে নেওয়া যাক, নাক দিয়ে কীভাবে বোঝা যায় বিভিন্ন ধরনের মহিলাদের মানসিকতা।
নাক দেখে যায় চেনা, কোন মেয়ের কি মানসিকতা!
লম্বা নাক – যে মহিলাদের নাক লম্বা হয়, তাঁরা বহু সন্তানের জননী হন। এই ধরণের মহিলারা খুবই অভিনমানী এবং রাগী মানুষ হন।
নাক দেখে যায় চেনা, কোন মেয়ের কি মানসিকতা!
মোটা নাক –মোটা নাকের অধিকারি মহিলারা খুবই মিশুকে গোছের হন। এঁরা সবার সঙ্গে সহজে বন্ধুত্ব করে ফেলেন। পরিবার ও বন্ধুবান্ধবের প্রতি এদের আগাধ আস্থা থাকে।
নাক দেখে যায় চেনা, কোন মেয়ের কি মানসিকতা!
চ্যাপ্টা নাক – চ্যাপ্টা নাকের মেয়েদের অনেক সময়ই কটাক্ষ করা হয়। তবে এই ধরণের মহিলারা খুবই উচ্চ শিক্ষিত ও বুদ্ধিমতী হন।
নাক দেখে যায় চেনা, কোন মেয়ের কি মানসিকতা!
নাক লাল হওয়া- অনেক মেয়ের নাক দেখা যায় ক্রমাগত লাল হতে। এ ধরনের মেয়েরা শারীরিকভাবে অস্বস্তিতে থাকে। তবে এঁরা খুবই মিষ্টভাষী মানুষ হন।
নাক দেখে যায় চেনা, কোন মেয়ের কি মানসিকতা!
যে মহিলার নাকের বাঁদিকে তিল রয়েছে তিনি ঘরোয়া গোছের মানুষ হন। অন্যদিকে যে মহিলার নাকের ডানদিকে তিল রয়েছে তিনি সুশ্রী হন, পাশপাশি তাঁর পিতা মাতার প্রতি অগাধ টান থাকে। নাকের সামনে তিন থাকলে সেই মহিলা ধনী হন।
নাক দেখে যায় চেনা, কোন মেয়ের কি মানসিকতা!
নাকের ছিদ্র বড়- যাঁদের নাক সুগঠিত অথচ ছিদ্র বড়, তাঁদের বিবাহিত জীবন সুখের হয়। এঁরা খুবই পরোপকারী মানুষ হন।

প্রচ্ছদ মডেল- তানজিন তিশা