Home / লাইফ স্টাইল / মিলিয়নিয়ারদের ১৩টি অভ্যাস যেগুলো আপনাকে আরও বেশি কর্মদক্ষ করে তুলবে

মিলিয়নিয়ারদের ১৩টি অভ্যাস যেগুলো আপনাকে আরও বেশি কর্মদক্ষ করে তুলবে

মিলিয়নিয়ারদের কিছু অভ্যাস আছে যেগুলোর কারণে তারা অনেক বেশি কর্মদক্ষ হয়। আপনার দৈনন্দিন রুটিনের এসব অভ্যাসগুলো গড়ে তুললে আপনিও হয়তো সফলতার মুখ দেখবেন তাদের মতোই। চলুন জেনে নেওয়া যাক-

১. ভাল মানুষের সাথে উঠা-বসা করুন, প্রতিষ্ঠানের নিয়ম-কানুন মেনে চলুন, সমকর্মী ও অধঃস্তনদের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ রাখুন এবং অধঃস্তনদের কাজের জন্য পুরষ্কৃত করুন। এসব কাজ আপনাকে প্রাতিষ্ঠানিক সফলতায় সাহায্য করবে।

২. ওই কাজটিকেই পেশা হিসেবে নিন যেটি আপনি করতে ভালবাসেন। কারণ, এই কাজই আপনাকে জীবনের বড় একটি সময় করতে হবে এবং কাজটিকে ভাল না বাসলে আপনি সহজে সফল হতে পারবেন না।

৩. ভোরবেলা ঘুম থেকে উঠুন, নিজেকে প্রস্তুত করুন কাজের জন্য এবং অবশ্যই কঠোর পরিশ্রম করুন।

৪. শুধু কঠোর পরিশ্রমই শেষ কথা নয়। কাজের ব্যাপারে স্মার্ট হতে হবে, আর চোখকান খোলা রাখতে হবে। কাজের ব্যাপারে টার্গেট ঠিক করে নিন নির্দিষ্ট সময়ে কি কি কাজ করবেন।

৫. যে কাজ করবেন সেটি সম্পর্কে ভয় বা ব্যর্থ হওয়ার চিন্তা বাদ দিয়ে কাজটা শুরু করে দিন। ভয় ও দুশ্চিন্তা আপনাকে পিছিয়ে দিবে।

৬. কার্যক্ষমতা বাড়ানোর জন্য আপনার কাজের প্রতি একাগ্রতা, সঠিক প্ল্যানিং আর ফোকাস রেখে কাজ করে যেতে হবে।

৭. ঘন্টা হিসেবে কাজকে মূল্যায়ন করবেন না। কাজ ঠিক কতটুকু শেষ করলেন, কতটুকু ঠিকভাবে করলেন তা হিসেব করুন।

৮. কাজ করতে গেলে কিছু কাজে বিরক্তি চলে আসে। কিন্তু কখনো বিরক্ত হয়ে কাজের ওই অংশ বাদ দিবেন না। বরং আগ্রহ নিয়েই করুন।

৯. দেয়ালে হাতুড়ি দিয়ে আঘাত করলেই দরজা তৈরী হয় না, দরজা বানানোর অন্যান্য সরঞ্জামও তৈরী থাকতে হয়। কাজের ক্ষেত্রেও শুধু একটি কাজের দক্ষতা নিয়ে পড়ে থাকলে হবে না, অনান্য সহায়ক দক্ষতাও অর্জন করার চেষ্টা করুন।

১০. কাজের প্রতি সততা রাখুন। সৎ না থাকলে যত পরিশ্রমই করবেন, কাজটা মন মতো হবে না। কাজের সততা আপনাকে অনেকদূর নিয়ে যাবে।

১১. ঠিক জায়গায় ঠিক কাজটিই করুন। এমন কাজে সময় ব্যয় করবেন না যে কাজের ফলাফল কেউ মূল্যায়ন করে না। আধুনিক একটি শহরে আপনি হারিকেন বা মোমবাতির ব্যবসা না করে জেনারেটরের ব্যবসার চিন্তা করুন, তাতে আপনি সফলতা পাওয়ার সুযোগ বেশি, আর পরিশ্রমকে মূল্যায়ন করে আপনার প্রোডাক্ট ব্যবহার করার মানুষও বেশি পাবেন।

১২. পরিশ্রম করতে দ্বিধান্বিত হবেন না, পরিশ্রম না করলে মাথায় হাজারো কু-চিন্তা আসবে যা আপনার মানসিক সজীবতা নষ্ট করবে।

১৩. কর্মদক্ষতা হলো কাজটি ঠিকভাবে করা। কোন কাজ অর্ধেক করে মূল্যায়নে বসে যাবেন না, হতাশ হবে না। কাজটি ঠিকভাবে করতে থাকুন, মাঝপথে থেমে যাওয়ার অপর নাম হেরে যাওয়া।