Wednesday , January 16 2019
Home / লাইফ স্টাইল / আপনার পিরিয়ডের দিনগুলিকে সহজ করে দেবে এই ১৫ টি জিনিস! জানুন বিস্তারিত…

আপনার পিরিয়ডের দিনগুলিকে সহজ করে দেবে এই ১৫ টি জিনিস! জানুন বিস্তারিত…

পিরিয়ডের দিনগুলিকে- আপনার পিরিয়ডের দিনগুলিকে- ওহ না! বিকেলে রাহুলের সঙ্গে ডেটিঙে যাব আর এই পিরিয়ড… ধুর একে এখনই হতে হলো ! এখন আমি কিভাবে যাব ? দাগের ভয়, তার ওপর এই পেট এবং কোমরের ব্যাথা। ঈশ্বর সব সমস্যাগুলি মেয়েদের জন্যই কেন হয় ? শুধু

এইরকম কিছু বিড়বিড় করতে করতে বিষন্ন মুখ নিয়ে বসে পড়ল ।

এটা সত্যি । মাসের সেই দিনগুলো যেকোনও মহিলার জন্য কোন খারাপ স্বপ্নের থেকে কম নয় । না সে সঠিকভাবে শুতে পারে আর না খেতে পারে । না বসতে পারে আর না কোথাও যেতে পারে ।

তার উপর মুড পালটানোর সমস্যা আলাদা ব্যাপার, যার জন্য মন খিটখিটে থাকে। কোন কাজে মনও লাগে না। নারী এবং মেয়েরা এই চিন্তা করে যেকোনভাবে এই ৪ দিন বেড়িয়ে যাক এবং এই পিরিয়ড থেকে মুক্তি পেয়ে যায় ।

কিন্তু আজ আপনাদের কাছে এমন কিছু কথা বলার আছে যার জন্য পরিয়ডের সময়কালের সমস্যাগুলি থেকে আপনি উদ্ধার হতে পারবেন ।

তাহলে দেরি না করে মন দিয়ে পড়ুন ।

পেট যেন উষ্ণতা পায়

এই দিনগুলিতে যদি ব্যাথা থেকে বাঁচতে চান তবে শরীরে বিশেষত পেটে এবং কোমরে শীতলতা জমতে দেবেন না । পেডুর অংশে রক্তসংবহন বজায় রাখার জন্য হট ওয়াটার পাউচ ব্যবহার করুন।

রসবেরির পাতা দিয়ে তৈরি চা

রসবেরির পাতা দিয়ে তৈরি চা পিরিয়ডের সময়ের পেট কামড়ানোকে দূর করে। এর মধ্যে থাকা মিনারেল আর ভিটামিন পেট ব্যাথা থেকে মুক্তি দেয়।

পিরিয়ডের অন্তর্বাস

সাধারণত পিরিয়ডের সময় রক্তস্রাব শোকার জন্য স্যানিটারি প্যাড বা টাম্পুনস ব্যবহার করা হয়। এর জন্য খুব শরীরে অস্বস্তি অনুভূত হয়। কিন্তু যদি আপনি এই পিরিয়ড অন্তর্বাসের ব্যবহার করতে চান তাহলে অস্বস্তি মনে হবে না । সঙ্গে সঙ্গে বার বার প্যাড পরিবর্তনের ঝঞ্ঝা থেকেও মুক্তি পাওয়া যায়।

রিচ্যুয়াল লাইনার্স

এগুলি ভারতে কম প্রচলিত কারণ এখানে মহিলারা প্যাডস ব্যবহার করতেই ভাল মনে করে । কিন্তু যদি আপনি পিরিয়ড অন্তর্বাসের ব্যবহার করে থাকেন তবে এই লাইনার্স বিশেষ উপযোগী কারণ এটি ব্যবহার করার পর পুনরায় ব্যবহার করা যায় ।

ভিন্ন ভিন্ন রকমের তেল

লেবেন্ডর, জেস্মিন, ব্লু ইয়োরো, মজৈরম বিভিন্ন তেল পিরিয়ডের ব্যথার জন্য ব্যবহার করা হয় । পিরিয়ডের সময় এই তেলের হালকা মালিশ করলে আরাম পাবেন । নিজেই ব্যবহার করে দেখুন ।

হারবল চা

প্রাকৃতিক হার্ভ এবং জরিবুটি থেকে বানানো চা আপনার পেটের ব্যথা দূর করতে এবং আপনার মনকে ভাল করতে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে।

লেবেন্ডর নুন

পিরিয়ডের দিনগুলোতে যখন আপনি স্নান করতে যান তখন হালকা গরম জলে লেভেন্ডর নুন দিয়ে স্নান করুন। এটি পিরিয়ডের সময় আসা শরীরের মধ্যে স্ট্রেস অপসারণ করে এবং মন ভাল অনুভব হয় ।

মেন্সস্ট্রুয়াল কাপের ব্যবহার

আপনি যদি প্যাড বা টাম্পুনস ব্যবহার করে সহজ অনুভব না করেন এবং আপনি সবসময় এই ভয়টি ধরে রাখেন যে আরও ব্লিডিং এর কারনে দাগ লাগবে। তাহলে আপনার জন্য এই মেন্সস্ট্রুয়াল কাপই সঠিক। এটির ব্যবহার সহজ এবং আরামদায়ক ।

হলুদ

হলুদ অনেক অ্যান্টি-অক্সিডেন্টে পরিপূর্ণ । যদি আপনার সঠিকভাবে পিরিয়ড না হয় বা ক্র্যাম্পস এর মতো সমস্যাগুলির নিষ্পত্তি চান তবে খাবারে হলুদের ব্যবহার বাড়িয়ে দিন।

তিল

তিলের তাসির গরম হয় তাই এটি ঠান্ডা আবহাওয়ায় বেশি ব্যবহার করা হয়। বেশিরভাগ মহিলাদের মধ্যে ঠান্ডার কারণে সঠিকভাবে রক্তস্রাব হয় না । এই জিনিস থেকে বাঁচানোর জন্য প্রতিদিন এক চামচ তিল খাওয়া ভাল হবে।

আদার চা

ভাই, আদা দেওয়া চা তো সবাই খাই। আর সেই সব মহিলাদের বেশি করে খাওয়া দরকার যাদের পিরিয়ড হয়েছে।

গাজর

গাজরের মধ্যে পাওয়া যায় ক্যারোটিন যা শরীরের মধ্যে এস্ট্রোজেন হরমোনের স্তর উন্নত করে। এতে পিরিয়ড সহজে হয় এবং আমাদের ভালো লাগে ।

জোয়ান

যখনই কোন পিরিয়ডে পেট ব্যথা হয় তখন তাদের জোয়ান বা মেথীর দানার জল খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয় । কিন্তু যদি আপনি শুধুমাত্র জোয়ানের জল খান তাও আপনার ভালো হবে ।

পেঁপে

পেঁপেও সেই কাজ করে যে কাজ গাজর করে। এটিও এস্ট্রোজেনের মাত্রা বাড়ায় যা পিরিয়ড সমন্ধী সমস্যা দূর করে।

আনারস

এটি যখনই খাবেন তো পুরো খাবেন, কারন এটি শরীরের মধ্যে উষ্ণতা বাড়ায় যাতে পিরিয়ড ভালো হয় আর ব্যথা দূর হয় ।

গমের তেল

সাধারণত নেচারাল গম খাওয়ার জন্য ব্যবহার করা হয়। কিন্তু এটি দিয়ে তৈরি তেল পিরিয়ড ক্র্যাম্পস ঠিক করতে সাহায্যকারী প্রমাণিত হতে পারে।

যদি আপনি পিরিয়ডের দিন গুলোকে আরামদায়ক বানাতে চান তো এই উপায় গুলো মেনে চলুন। যদি অন্য কোন শারীরিক সমস্যা হয় তাহলে নিচে লিখুন কমেন্ট বাক্সে এবং এই স্টেরি আপনার বন্ধুদের শেয়ার করতে ভুলবেন না।