Wednesday , January 16 2019
Home / লাইফ স্টাইল / ছোলা খাওয়ার বিস্ময়কর কিছু উপকারিতা!

ছোলা খাওয়ার বিস্ময়কর কিছু উপকারিতা!

ছোলা একটি ডাল জাতীয় খাদ্যশস্য। এটি প্রোটিনে সমৃদ্ধ। মধ্যপ্রাচ্য, পশ্চিম এশিয়া এবং ভারতীয় উপমহাদেশে এটি চাষ করা হয়। আর কাঁচা ছোলার গুণ সম্পর্কে আমরা সবাই জানি। প্রতি ১০০ গ্রাম খাদ্যপোযগী ছোলায় আমিষ প্রায় ১৮ গ্রাম, কার্বোহাইড্রেট প্রায় ৬৫ গ্রাম, ফ্যাট মাত্র ৫ গ্রাম, ২০০ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম, ভিটামিন ‘এ’ প্রায় ১৯২ মাইক্রোগ্রাম এবং প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি-১ ও বি-২ আছে।

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখে: ১০০ গ্রাম চলে ১৭ গ্রাম প্রোটিন, ৬৪ গ্রাম শর্করা, ৫ গ্রাম ফ্যাট থাকে। এছাড়া, ছোলায় থাকা শর্করায় গ্লায়সেমিক্স-এর পরিমাণ কম। তাই ডায়াবেটিক রোগী রোজ ছোলা খেলে উপকার পবেন।

নার্ভ ভালো রাখে: ছোলাতে প্রচুর ভিটামিন বি আছে। যা শরীরের সমস্ত ব্যথা কমায়। এমনকি হাড় বা স্নায়ুর ব্যথা, হাড়ক্ষয় সারাতে সাহায্য করে এর মধ্যে থাকা ও এস্ত্রোজেন।

ব্লাডপ্রেসার নিয়ন্ত্রণে রাখে: রোজের ডায়েটে যদি ভেজানো ছোলা থাকে। বিশেষ করে মেয়েদের জন্য খুবই ভালো। কারণ, ছোলায় প্রচুর ফলিক অ্যাসিড রয়েছে। এই উপাদন হাইপার টেনশন কমায়। ফলে, রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে।

কফ-কাশি কমায়: বুকের মধ্যে পুরনো কফ জমে আছে। নিয়মিত ছোলা খেলে জমে থাকা কফ উঠে আসবে। এতে কাশি কমবে। একই সঙ্গে ছোলার মধ্যে থাকা ডায়াটারি ফাইবার কোষ্ঠকাঠিন্য কমায়। আর রোজ পেট পরিষ্কার মানেই ঝটপট হজম।
ক্যান্সার দূরে রাখে: কথাটা প্রমাণিত। আরো প্রমাণিত এর মধ্যে থাকা ফলিক অ্যাসিড মেয়েদের কোলন আর রেকটাল ক্যানসারের ঝুঁকি কমায়। ফলিক অ্যাসিড রক্তে এলার্জির পরিমাণ কমিয়ে হাঁপানি হতে দেয় না।

এনার্জি বাড়ায়: একমুঠো ছোলা মানে সেকেন্ডে এনার্জি। এর মধ্যে থাকা হাই প্রোটিন এনার্জির উৎস। এছাড়াও ছোলার মিথিওনাইন দেহকোষ গঠনে অতি গুরুত্বপূর্ণ। দিনভর চাঙা থাকতে চাইলে সকালে উঠে খালি পেতে অবশ্যই রাতে ভেজানো ছোলা খান একমুঠো।
অ্যানিমিয়া দূরে রাখে: যেহেতু ছোলার মধ্যে প্রচুর আয়রন থাকে তাই যারা রক্তাল্পতায় ভুগছেন তারা চোখ বন্ধ করে রোজ ভেজা ছোলা খান। এটি খুব দ্রুত রক্তে হিমোগ্লোবিনের মাত্রা বাড়ায়।

ওজন কমায়: ছোলা যেমন পেট পরিষ্কার রাখে তেমনি এর মধ্যে থাকা হাই ফাইবার ঝটপট পেট ভরিয়ে দেয়। অনেকক্ষণ পেট ভর্তি থাকলে স্বাভাবিকভাবে আপনি কম খাবেন। ফলে বাড়তি ওজন কমবে। রোজ ছোলা খেলে আপনি ছিপছিপে থাকবেন সারাজীবন।
কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে: ছোলায় খাদ্য-আঁশও আছে বেশ। এ আঁশ কোষ্ঠকাঠিন্য সারায়।

হৃদরোগের ঝুঁকি কমাতে : খাবারে ছোলা যুক্ত করলে টোটাল কোলেস্টেরল এবং খারাপ কোলেস্টেরলের পরিমাণ কমে যায়। ছোলাতে দ্রবণীয় এবং অদ্রবণীয় উভয় ধরনের খাদ্য আঁশ আছে যা হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কমিয়ে দেয়।

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে: যে সকল অল্পবয়সী নারীরা বেশি পরিমাণে ফলিক এসিডযুক্ত খাবার খান তাদের হাইপারটেনশন এর প্রবণতা কমে যায়। যেহেতু ছোলায় বেশ ভালো পরিমাণ ফলিক এসিড থাকে সেহেতু ছোলা খেলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখা সহজ হয়। এছাড়া ছোলা বয়ঃসন্ধি পরবর্তীকালে মেয়েদের হার্ট ভালো রাখতেও সাহায্য করে।
অস্থির ভাব দূর করে: ছোলায় শর্করার গ্লাইসেমিক ইনডেক্সের পরিমাণ কম থাকায় শরীরে প্রবেশ করার পর অস্থির ভাব দূর হয়।
জ্বালাপোড়া দূর করে: সালফার নামক খাদ্য উপাদান থাকে এই ছোলাতে। সালফার মাথা গরম হয়ে যাওয়া, হাত-পায়ের তলায় জ্বালাপোড়া কমায়।

 

দেখুন আরও কিছু ভিডিও পোস্ট

সমবয়সী কোন মেয়েকে বিয়ে করলে যে সমস্যার সম্মুখিন হতে হয়!

পুরুষের হারানো শক্তি ফিরে পেতে লজ্জাবতী গাছ, যেভাবে ব্যবহার করবেন…

স্ত্রীকে খুশি করার সহজ কিছু উপায় জেনে নিন, সারাজীবন কাজে লাগবে.

প্রতিদিন মাত্র ১ টি এলাচ খাওয়ার উপকারিতা..জানলে আপনিও খাবেন!…

আমলকী খেলে কী হয়, জানলে আজ ই খাওয়া শুরু করবেন। 

পেঁয়াজের ১০টি অসাধারন স্বাস্থ্য উপকারিতা জানলে অবাক হবেন… 

হঠাৎ জিহ্বা পুড়ে গেলে কী করবেন? দেখে নিন..

মেহেদি পাতার ব্যবহারে আজীবন সুস্থ থাকুন, যেভাবে ব্যবহার করবেন..

বিনা পয়সার যে খাবারটি যৌ’বন ধরে রাখে ও নতুন চুল গজায়ঃ

২ চামচ পেঁপের বীজের সঙ্গে এক চামচ খাঁটি মধু মিশিয়ে খেয়েছেন কখনো?

আপনার ত্বকের উজ্জ্বলতা যেভাবে ফিরিয়ে আনবেন ভাতের ফ্যান দিয়ে..